Text size A A A
Color C C C C

খবর

ক্রমিক শিরোনাম প্রকাশের তারিখ
এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব এস এম শান্তুনু চৌধুরী কর্তৃক ০৫/১২/২০১৯ তারিখ মিরপুর সেকশন-২ এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে "পিজা কুইন" রেস্টুরেন্ট এর রান্নাঘরে অত্যন্ত নোংরা পরিবেশ, প্রচুর তেলাপোকা, প্রচুর পরিমাণে পোড়াতেল পাওয়া যায়। এসকল অপরাধে ৩,০০,০০০/- অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। ২০১৯-১২-০৫
৩৩৩ তে অভিযোগের ভিত্তিতে ০৫/১২/২০১৯ তারিখ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব পংকজ চন্দ্র দেবনাথ কর্তৃক নিকুঞ্জ এলাকায় “কলাপাতা” রেস্টুরেন্টে মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে এর ভেতর অত্যন্ত নোংরা পরিবেশ ও অন্যান্য অপরাধে ১,০০,০০০/- অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। ২০১৯-১২-০৫
Chairman Bangladesh Food Safety Authority has given speech on "Food Safety Expert Consultation meeting" Organized by SNV Bangladesh on 4th December 2019. ২০১৯-১২-০৪
তাৎক্ষনিকভাবে খাদ্যদ্রব্যের মান পরীক্ষা করে ব্যবস্থা নিতে ভ্রাম্যমান পরীক্ষাগার নিয়ে ৪ ডিসেম্বর ২০১৯ থেকে ভেজাল বিরোধী অভিযান শুরু করেছে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ। প্রথমদিনে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে বিভিন্ন মাছের দোকানে চলে অভিযান। তবে কোন ফরমালিনের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। ২০১৯-১২-০৪
বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের মোবাইল ল্যাবরেটরি ভ্যান USAID ও জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা FAO এর সহায়তায় ৩ ডিসেম্বর হস্তান্তর করা হয়। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জনাব সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি, মাননীয় মন্ত্রী, খাদ্য মন্ত্রণালয়। ২০১৯-১২-০৪
এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব পংকজ চন্দ্র দেবনাথ কর্তৃক ০৪/১২/২০১৯ তারিখ রাজধানীর গুলশান এলাকায় অবস্থিত “Herfy” রেস্টুরেন্ট এ অভিযান পরিচালনাকালে তাদের মূল রান্নাঘরে তুলনামূলক পরিচ্ছন্ন পরিবেশ পাওয়া যায়। কিন্তু তাদের স্টোররুম সংলগ্ন অপর একটি রান্নাঘরে প্রচুর পরিমানে মেয়াদোত্তীর্ণ ও যথাযথ লেবেলবিহীন খাদ্যপোকরণ পাওয়া যাওয়ায় রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা রুজুর নির্দেশ দেয়া হয়েছে। জব্দকৃত মালামাল ধ্বংস করা হয়। ২০১৯-১২-০৪
এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব এস এম শান্তুনু চৌধুরী কর্তৃক ০২/১২/২০১৯ তারিখ মিরপুর এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে "ডমিনাজ পিজ্জা" এর রান্নাঘরে মেয়াদউত্তীর্ণ দুধ, বার্গার বান, পাউরুটি, কারি পাউডার এবং দুর্গন্ধযুক্ত মাংস পাওয়া যায়। এ অপরাধে "ডমিনাজ পিজ্জা" এর পক্ষে তাৎক্ষণিকভাবে উপস্থিত ম্যানেজার কে ০৫(পাঁচ) দিনের কারাদন্ড প্রদান করা হয়। ২০১৯-১২-০২
এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব পংকজ চন্দ্র দেবনাথ কর্তৃক ০২/১২/২০১৯ তারিখ মগবাজার এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে “ঘরোয়া হোটেল ও রেস্টুরেন্ট" এর ভেতর অত্যন্ত নোংরা পরিবেশে খাদ্য প্রস্তুত ও অন্যান্য অপরাধে ২,০০,০০০/- অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। ২০১৯-১২-০২
এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব এস এম শান্তুনু চৌধুরী কর্তৃক ২৮/১১/২০১৯ তারিখ শান্তিনগর এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে "সুমতাম" রেস্টুরেন্ট এর রান্নাঘরে নোংরা পরিবেশ, পঁচা দুর্গন্ধযুক্ত চাইনিজ ভেজিটেবল, লেবেলবিহীন বেশ কিছু পণ্য এবং একই রেফ্রিজারেটরে কাঁচা মাছ-মাংস ও রান্না করা নুডুলস একসাথে খোলা অবস্থায় পাওয়া যায়। এসকল অপরাধে "সুমতাম" রেস্টুরেন্ট কে ৩,০০,০০০/- (তিন লক্ষ টাকা) অর্থদন্ড অনাদায়ে ব্যবস্থাপককে ০১ মাসের কারাদন্ড প্রদান করা হয়। ২০১৯-১১-২৮
১০ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব পংকজ চন্দ্র দেবনাথ কর্তৃক ২৮/১১/২০১৯ তারিখ রাজধানীর শান্তিনগর এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে "Sky view Lounge" রেস্টুরেন্ট এর রান্নাঘরে নোংরা পরিবেশে খাদ্য প্রস্তুত ও অন্যান্য অপরাধে ৩,০০,০০০/- অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। ২০১৯-১১-২৮
১১ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব এস এম শান্তুনু চৌধুরী কর্তৃক ২৭/১১/২০১৯ তারিখ খিলগাঁও এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে "আকর্ষণ বেকারি" এর ভেতর অত্যন্ত নোংরা পরিবেশে কেক, বিস্কিট প্রস্তুত করতে দেখা যায়। তাদের কাছে লেবেলবিহীন বেশ কিছু বোতলে সুগন্ধী পাওয়া যায়। এসকল অপরাধে "আকর্ষণ বেকারী" কে ৩,০০,০০০/- (তিন লক্ষ টাকা) অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। ২০১৯-১১-২৭
১২ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব পংকজ চন্দ্র দেবনাথ কর্তৃক ২৭/১১/২০১৯ তারিখ খিলগাঁও এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে “সততা বেকারি" এর ভেতর অত্যন্ত নোংরা পরিবেশে কেক, বিস্কিট প্রস্তুত করতে দেখা যায়। তাদের কাছে লেবেলবিহীন বেশ কিছু বোতলে সুগন্ধী ও সিনথেটিক রং পাওয়া যায়। এছাড়াও কোন প্রকার লেবেল ব্যতিত নোংরা পরিবেশে বেকারি পণ্য মজুদরত অবস্থায় পাওয়া যায়। এসকল অপরাধে উক্ত প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নিরাপদ খাদ্য আইন ২০১৩ অনুযায়ী নিয়মিত মামলা রুজুর নির্দেশ দেয়া হয়। ২০১৯-১১-২৭
১৩ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব এস এম শান্তুনু চৌধুরী কর্তৃক ২৬/১১/২০১৯ তারিখ (৩৩৩ নম্বরে অভিযোগের ভিত্তিতে) গুলিস্তান এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে "অ্যারোমা স্ন্যাকস বার" এ অত্যন্ত নোংরা পরিবেশে খাবার প্রস্তুত করতে দেখা যায়। মালিক পক্ষ বা ম্যানেজার পর্যায়ের কাউকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। প্রতিষ্ঠানটি সিলগালা করে বন্ধ করে দেওয়া হয়। ২০১৯-১১-২৬
১৪ জনাব পংকজ চন্দ্র দেবনাথ, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক ২৬/১১/২০১৯ তারিখ রাজধানীর মগবাজার এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে “Canton Restaurant" এর রান্নাঘরে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য প্রস্তুত ও অন্যান্য অপরাধে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা রুজু করা হয়। ২০১৯-১১-২৬
১৫ জনাব পংকজ চন্দ্র দেবনাথ, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট কতৃক ২৫/১১/২০১৯ তারিখ রাজধানীর ধানমন্ডি এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে “MadChef" রেস্টুরেন্ট এর রান্নাঘরে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য প্রস্তুত ও অন্যান্য অপরাধে ১,০০,০০০/- অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। ২০১৯-১১-২৫
১৬ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব এস এম শান্তুনু চৌধুরী কর্তৃক ২৫/১১/২০১৯ তারিখ ধানমন্ডি এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে "চিলেকোঠা" রেস্টুরেন্ট এর রান্নাঘরে নোংরা পরিবেশ ও অন্যান্য অপরাধে ৩,০০,০০০/- অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। ২০১৯-১১-২৫
১৭ ৩৩৩ নম্বরে অভিযোগের ভিত্তিতে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট এস এম শান্তুনু চৌধুরী এর নেতৃত্বে ২১/১১/২০১৯ তারিখ গ্রীন রোডের “নূর বিরিয়ানি হাউস” এ অভিযানকালে সার্বিক পরিবেশ পরিচ্ছন্ন ছিল। শুধুমাত্র একটি প্যাকেটে কিছু পঁচা শসা পাওয়া যাওয়ায় ম্যানেজারকে সতর্ক করা হয়। ২০১৯-১১-২১
১৮ জনাব পংকজ চন্দ্র দেবনাথ, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক ২১/১১/২০১৯ তারিখ রাজধানীর বাংলা মোটর এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে “Waterfall" রেস্টুরেন্ট এর রান্নাঘরে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য প্রস্তুত ও অন্যান্য অপরাধে ২,০০,০০০/- অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। ২০১৯-১১-২১
১৯ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট এস এম শান্তুনু চৌধুরী এর নেতৃত্বে ২১/১১/২০১৯ তারিখ মোহাম্মদপুর এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে “অন ফায়ার” রেস্টুরেন্ট এর রান্নাঘরে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে রান্না করা ও অন্যান্য অপরাধে ১,০০,০০০/= অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। ২০১৯-১১-২১
২০ জনাব পংকজ চন্দ্র দেবনাথ, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কতৃপক্ষ কর্তৃক ১৯/১১/২০১৯ তারিখ রাজধানীর রামপুরা এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে “আলকাদেরিয়া” রেস্টুরেন্টে এক প্যাকেট মেয়াদোত্তীর্ণ Burger slices cheese পাওয়া যাওয়ায় সংশ্লিষ্ট ম্যানেজারকে সতর্ক করা হয়। একই সাথে আলকাদেরিয়া” রেস্টুরেন্টকে পূর্বে প্রদত্ত ভালো মানের প্রতীক স্বরূপ প্রদত্ত A লেবেল মার্কা খুলে নেয়া হয়। ২০১৯-১১-১৯

সর্বমোট তথ্য: ৯৫



Share with :

Facebook Facebook